মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কার্যবিবরণী ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

তারিখ       ঃ- ৩০/১২/২০১৩।

সময়        ঃ- সকাল ১০.০০ ঘটিকা ।

স্থান         ঃ- উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষ।

সভাপতি    ঃ- সাইফুর রহমান খান‘

         উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                   দুপচাঁচিয়া, বগুড়া

 

                 সভাপতি উপস্থিত সদস্য বৃন্দকে স্বাগত জানিয়ে সভা শুরু করেন। সভায় উপজেলার আলোচ্য মাসের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি এবং আইন-শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারন বা সম্ভাবনা আছে কি-না সে বিষয়ে জানাতে বলেন। আইন-শৃঙ্খলা উন্নয়নে কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায়  সে সম্প©র্ক আলোচনা, কর্মপরিকল্পনা ও মতামত ব্যক্ত করার জন্য উপস্থিত সদস্য বৃন্দকে অনুরোধ  করেন। 

 

ক্রঃ

নং

আলোচক

আলোচনা

গৃহিত সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়ন কারি

 

গত সভার কার্য বিবরণী

সভায় নভেম্বর/১৩ মাসের অনুষ্ঠিত সভার কার্য বিবরণী পাঠ করা হয়। অতঃপর সভাপতি উপস্থিত সদস্যবৃন্দকে নভেম্বর/১৩ মাসে অনুষ্ঠিত সভার কার্য বিবরণী প্রসঙ্গে কোন আপত্তি, সংশোধনী, বিয়োজনের কোন প্রস্তাব আছে কি-না তা জানাতে সদস্যবৃন্দকে অনুরোধ করেন।

সভায় গত নভেম্বর/১৩ মাসে অনুষ্ঠিত সভার কাযবিবরণী অনুমোদন প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়। উপস্থিত সদস্যবৃন্দ কর্তৃক কোন আপত্তি সংশোধনী ও বিয়োজনের প্রস্তাব না থাকায় নভেম্বর/১৩ মাসে অনুষ্ঠিত সভার কার্য বিবরণী সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত ও গৃহিত হয়।

সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার,দুপচাঁচিয়াবগুড়া।

০১

থানার অপরাধ চিত্র

অফিসার ইনচার্জ নভেম্বর/১৩ মাসে থানার সংগঠিত অপরাধ  প্রসংগে  জানান, আলোচ্য মাসে থানায় মোট ১০ টি অপরাধ সংক্রান্ত মামলা হয়েছে। মামলার বিবরণ উল্লেখ করা হলোঃ

খুন                          ০১

মাদক দ্রব্য আইন          ০২

অপহরন                    ০১

চুরি                         ০১

অন্যান্যভাবে               ০৫

                     মোট=১০ টি

মোট ১০ টি মামলা হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশী কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে।

আলোচ্য নভেম্বর/১৩ মাসের সংগঠিত অপরাধ চিত্র প্রসঙ্গে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়। মাদক নিয়ন্ত্রন করতে ওসিকে আরো তৎপর হতে বলা হয়।

 

অফিসার ইনচার্জ, দুপচাঁচিয়াথানা

 

০২

উপজেলা সমাজসেবা অফিসার

উপজেলা সমাজসেবা অফিসার জানান দুপচাঁচিয়া উপজেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা ভাল। মাদক নিয়ন্ত্রনে মাদক

উপজেলা সমাজ সেবা অফিসারকে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রনে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন

উপজেলা সমাজসেবা অফিসার


=২=

ক্রঃ

নং

আলোচক

আলোচনা

গৃহিত সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়ন কারি

 

 

 

নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর ও পুলিশ প্রশাসনের অভিযানে বতর্মানে মাদকের প্রভাব কমেছে।

অধিদপ্তরের সাথে  আলোচনা করে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করতে অনুরোধ করা হয়।

 

 

০৩

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ অফিসার

উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ অফিসার জানান উপজেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা ভাল। হাসপাতালের ঔষধ চুরির ঘটনা সরেজমিন পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে  অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ঔষধ চুরির ঘটনা সুষ্ঠুভাবে তদন্ত করতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়।

অফিসার ইনচার্জ

০৪

মোঃ আমিনুর রহমান

সদস্য

উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি

মোঃ আমিনুর রহমান সদস্য উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সদস্য জানান দেশে বর্তমান রাজনৈতিক অস্থিরতা বেড়েছে। একারনে কোন কোন স্থানে আইন-শৃঙ্খলা অবনতি হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বর্তমান উপজেলার  আইন-শৃঙ্খলা ভালো। রাস্তায় এখনো অব্যাহতভাবে কাঠ রেখে চলাচলের প্রতিবন্ধকতা তৈরী করা হচ্ছে।

আমিনুর রহমানের বক্তব্য প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য রাস্তা হতে কাঠ সরানোর ব্যবস্থা নিতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়।  

অফিসার ইনচার্জ

০৫

প্রাক্তন কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভাল। মাদক পুরোপুরি বন্ধ হয় নি। স্বাধীনতার প্রতিক মুক্তমঞ্চ এখনো সুইপার দ্বারা অবরুদ্ধ।    

প্রাক্তন কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উত্থাপিত  বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। মাদক নিয়ন্ত্রনে ও মুক্ত মঞ্চ মুক্ত করনের উদ্যোগ অচিরেই নিতে হবে।      

অফিসার ইনচার্জ

০৬

চেয়ারম্যান সদর ইউ,পি

চেয়ারম্যান সদর ইউ,পি জানান তার ইউপির আইন-শৃঙ্খলা ভালো। সি ও বাসষ্ট্যান্ড যানজট মুক্ত করনের দাবী জানান। অবরোধ হরতালের সময় রাস্তায় বাস, ট্রাক, ভটভটি দাড় করিয়ে চাঁদা তোলা হচ্ছে। যারা চাঁদা নিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান।

সি ও বাসষ্ট্যান্ড যানজট মুক্ত করনের জন্য অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ জানানো হয়।  বাস, ট্রাক, ভটভটি হতে চাঁদা উঠানো বন্ধ করতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়।

অফিসার ইনচার্জ

০৭

চেয়ারম্যান গুণাহার ইউ পি

বর্তমান প্রেক্ষাপটে রাজনৈতিক অবস্থার প্রভাব ইউ পিতে দেখা দিয়েছে। মোঃ ফজলুর রহমান এর চলাচলের রাস্তা প্রতিবেশীরা বন্ধ করায় অবরুদ্ধ হয়েছে। জনৈক আকরাম হোসেন তার চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। তিনি এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থার নেয়ার প্রস্তাব করেন।

গুনাহার ইউপির চেয়ারম্যান এর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ঐ ইউপিতে রাজনৈতিক অবস্থা পর্যবেক্ষন করার জন্য অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ  করেন। তাছাড়া অবরুদ্ধ বজলুর রহমানের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়।

অফিসার ইনচার্জ

         

 

 

 

=৩=

ক্রঃ

নং

আলোচক

আলোচনা

গৃহিত সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়ন কারি

০৮

তপন কুমার কুন্ডু

 সদস্য উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি

তপন কুমার কুন্ড, সদস্য, উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা  কমিটি জানান স্বাধীনতার প্রতিক মুক্ত মঞ্চ এখনও দখল মুক্ত হয় নি। অবরোধ বাঁধা সৃষ্টির জন্য রাস্তার উপরের রাখা কাঠ দিয়ে ব্যারিকেট তৈরী করা হয়। তিনি রাস্তার উপর হতে কাঠ সরানোর প্রস্তাব করেন। তিনি জানান খড়ির দোকানে বাট খারার পরিবর্তে কাঠ দিয়ে মাপ দেয়া হয়।  

বাসষ্ট্যান্ডে মুক্তমঞ্চ মুক্তকরনের জন্য কাজ চলছে। রাজনৈতিক পরিস্থিতি শান্ত হলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে।  খড়ির দোকানে মোবাইল কোর্ট অচিরেই করা হবে।

সভাপতি

০৯

সভাপতি প্রেস ক্লাব, দুপচাঁচিয়া

সভাপতি প্রেস ক্লাব জানান মুক্তমঞ্চ সুইপার মুক্তকরনের জন্য প্রস্তাব করেন।

মুক্তমঞ্চ সুইপার দখল মুক্তকরনের ব্যবস্থা নিতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়। 

অফিসার ইনচার্জ

১০

চেয়ারম্যান তালোড়া ইউ পি

চেয়ারম্যান তালোড়া ইউ পি জানান তার ইউ পির আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো। তেমন কোন সমস্যা নেই। 

চেয়ারম্যান তালোড়া ইউ পি  কে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে সজাগ থাকতে অনুরোধ করেন।

সভাপতি

১১

 চেয়ারম্যান জিয়ানগর

 চেয়ারম্যান জিয়ানগর ইউপি জানান  তার ইউপির বর্তমান আইন শৃঙ্খলা ভাল। নাশকতা ও অন্য কোন অপরাধ আলোচ্য মাসে ঘটে নি।

জিয়ানগর ইউ পি চেয়ারম্যান কে ইউ পি আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা নিয়মিত অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করা হয়।

সভাপতি/ অফিসার ইনচার্জ

১২

চেয়ারম্যান চামরুল ইউ পি

চেয়ারম্যান চামরুল ইউ পি জানান তার ইউপির আইন শৃঙ্খলা ভালো। ট্যাংরা গাড়ী ও পাথারী মাঠে রাত্রীকালে জুয়া খেলা হয়। জুয়া খেলা ও নারী ব্যবসায়ীর হোতা জনৈক হান্নান। তিনি জুয়া ও নারী ব্যবসা বন্ধের প্রস্তাব করেন।   

 চামরুল ইউপির ট্যাংরা গাড়ী ও পাথারী মাঠের জুয়া খেলাও নারী ব্যবসা বন্ধ করতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়। 

অফিসার ইনচার্জ

১৩

ভাইস চেয়ারম্যান

ভাইস চেয়ারম্যান জানান রাজনৈতিক অস্থিরতার এবং হরতাল অবরোধের কারনে একশ্রেনীর স্বার্থ ন্বেষী ব্যাক্তি অবাধে রাস্তার গাছ কর্তন করে পথ চলার বাধার সৃষ্টি করছে এবং ঐ কাটা গাছ বিক্রি করছে। এ কারনে রাস্তার নিরাপত্তা দেয়া দরকার। তিনি গুনাহার, তালোড়া ও গোবিন্দপুর ইউ পির রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষনের দাবী জানান।

ভাইস চেয়ারম্যানের বক্তব্য প্রসঙ্গে সভায় আলোচনা হয় । বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে রাস্তার নিরাপত্তা দিতে অফিসার ইনচার্জ অনুরোধ করা হয়। তাছাড়া রাস্তার গাছ কর্তন বন্ধ করতে অফিসার ইনচার্জকে অনুরোধ করা হয়।

 অফিসার ইনচার্জ

১৪

চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ ও উপদেষ্টা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি

চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ ও উপদেষ্টা উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি জানান, আইন-শৃঙ্খলা ভালো। এ উপজেলায় রাজনৈতিক মতভেত থাকলেও  এ নিয়ে কলহ কন্দোল নেই। রাজনৈতিক দিক

চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ ও উপদেষ্টা উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির বক্তব্য প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়।আইন শৃঙ্খলা রক্ষায়

অফিসার ইনচার্জ

                                                                          =৪=

ক্রঃ

নং

আলোচক

আলোচনা

গৃহিত সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়ন কারি

 

 

থেকে এখানে কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয় নি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের ভূমিকা প্রশংসনীয়। তিনি এ পরিবেশ ধরে রাখার জন্য তিনি সকলকে অনুরোধ করেন। 

সহযোগিতা দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়।

 

 

সভাপতি তার দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্যে উল্ল্যেখ করেন আইন-শৃঙ্খলা পূর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে অনেক ভালো। মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রনসহ রাজনৈতিক সহিংসতা বন্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া  হয়েছে। সভায় আলোচিত কিছু বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সেসকল বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইন-শৃঙ্খলা উন্নয়নে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সকল সদস্যকে সচেতন হতে এবং কোন এলাকায় আইন শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারন দেখা দিলে তা সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ অথবা তাঁকে জানাতে অনুরোধ করেন। 

 

পরিশেষে সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় সভাপতি উপস্থিত সকল সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

 

(সাইফুর রহমান খান)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

স্মারক নংঃ ০৫.৫০.১০৩৩.০০০.০৩.০৪৯.১৩- ৮৯৩                                              তারিখঃ ৩০ ডিসেম্বর ২০১৩।

 

অনুলিপি ও সদয় জ্ঞাতার্থে/কার্যার্থে প্রেরণ করা হলোঃ-

 

১। জেলা প্রশাসক

     বগুড়া।

২। পুলিশ সুপার

    বগুড়া।

৩। চেয়ারম্যান

     উপজেলা পরিষদ, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

৪। ভাইস-চেয়ারম্যান/ ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা)

     উপজেলা পরিষদ, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

৫। উপজেলা ----------------- অফিসার, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

৬। মেয়র,

     দুপচাঁচিয়া/তালোড়া পৌরসভা, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

৭। চেয়ারম্যান ------------------------

     ইউ,পি (সকল) দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।

৮। জনাব -------------------- সদস্য উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।          

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

দুপচাঁচিয়া, বগুড়া।